ঘুটিয়ারি শরিফে মানি এক্সচেঞ্জ প্রতারণায় গ্রেফতার এক বাংলাদেশি সহ ৩ জন

পুরীর রথযাত্রার সঙ্গে জড়িত কিছু চমকপ্রদ তথ্য

পুরীর রথযাত্রার সঙ্গে জড়িত কিছু চমকপ্রদ তথ্য। ১. বিষ্ণুর অন্যতম অবতার জগন্নাথ। অক্ষয় তৃতীয়ার দিন থেকেই রথের নির্মাণ শুরু হয়ে যায়। রথ তৈরি করতে প্রায়...

৭০০ বছরের পুরানো পুরীর রথ যাত্রার ইতিহাস

৭০০ বছরের পুরানো পুরীর রথ যাত্রার ইতিহাস। ওড়িশার প্রাচীন পুঁথি ব্রহ্মাণ্ডপুরাণ অনুযায়ী সত্যযুগ থেকে চালু হয়েছে এই রথযাত্রা। প্রায় আনুমানিক সাতশো বছরের পুরনো পুরীর...

বিষ্ণুপুরের রথযাত্রা

বিষ্ণুপুরের রথযাত্রা । বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণুপুর মল্ল রাজাদের স্মৃতিবিজড়িত কত যে অনুষ্ঠান ছিল তা হয়তো আজকের বিষ্ণুপুর বাসি পুরোটাই ধরে রাখতে পারেনি। সেই সময়কার...

বহু প্রতীক্ষিত 30 ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট তিনটি সুবিশাল রথ রাজপথে নামার অপেক্ষায়

বেলঘড়িয়া রথ তলা শ্রী শ্রী জগন্নাথ মহাপ্রভু মন্দির কমিটির সহযোগিতায় ও রথতলা পরিষেবা ও ফ্রেন্ডস অফ সোসাইটির উদ্যোগে বহু প্রতীক্ষিত 30 ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট...

রাত পেরোলেই ঐতিহ্য মেনে রায়গঞ্জের রাজপথে নামবে ইসকনের রথ

রাত পেরোলেই ঐতিহ্য মেনে রায়গঞ্জের রাজপথে নামবে ইসকনের রথ। রাত পেরোলেই ঐতিহ্য মেনে রায়গঞ্জের রাজপথে নামবে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ বা ইসকনের রথ। প্রথা...

ঘুটিয়ারি শরিফে মানি এক্সচেঞ্জ প্রতারণায় গ্রেফতার এক বাংলাদেশি সহ ৩ জন । রবিবার রাতে পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ঘুটিয়ারি শরিফ পুলিশ ফাঁড়ির ওসি ফারুক রহমানের নেতৃত্বে স্পেশাল পুলিশ টিম অভিযান চালিয়ে মানি এক্সচেঞ্জ প্রতারণায় ৩ জনকে গ্রেফতার করে। ধৃতদের মধ্যে মহম্মদ আলি বেপারি নামে একজন বাংলাদেশি নাগরিক। তার বাড়ি বাংলাদেশের মাদারীপুর জেলার কেশোরদিয়া এলাকায়। বাকী ধৃতদের মধ্যে মহম্মদ হারুনের বাড়ি উত্তরপ্রদেশে মোরাদাবাদ এবং কল্যাণী বিশ্বাস ওরফে সালমা তার বাড়ি এই রাজ্যের নদীয়া জেলার শান্তিপুর এলাকায়।

 

এমনি চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলা থানার ঘুটিয়ারি শরিফের হালদার পাড়া এলাকায়।স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে গত ছয় মাস ধরে ঘুটিয়ারি শরিফ এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে থাকেন উত্তরপ্রদেশে মোরাদাবাদের বাসিন্দা মহম্মদ হারুন। তিনি বাংলাদেশের নাগরিক মহম্মদ আলি বেপারি এবং নদীয়া শান্তিপুরের বাসিন্দা কল্যাণী বিশ্বাস ওরফে সালমা কে সঙ্গে নিয়ে মানি এক্সচেঞ্জ নামে প্রতারণা করার জাল বিছিয়ে ছিলেন।

 

গোপনে এই মানি এক্সচেঞ্জের ফাঁদ পেতে চলছিল লোকেদের প্রতারণা করার চক্রান্ত। আর এই খবর পুলিশ গোপনে পেয়ে এদিন রাতে ঘুটিয়ারি শরিফ পুলিশ ফাঁড়ির ওসি ফারুক রহমানের নেতৃত্বে স্পেশাল পুলিশ টিম অভিযান চালিয়ে হাতে নাতে ধরে ফেলে ৩ জনকে। ধৃতদের কাছ থেকে পুলিশ ৪০ পিসি এস,ফেডারেল রিজার্ভ কারেন্সি নোট,যা আমেরিকান ২৪৯ ডলার,৩ টি মোবাইল এবং ভাঁজ করা সংবাদপত্রের বান্ডিল।

 

এদিকে পুলিশের জেরায় ধৃত বাংলাদেশের নাগরিক মোহাম্মদ আলি বেপারী স্বীকার করেছেন যে তিনি একজন বাংলাদেশী নাগরিক এবং ভারতে তার উপস্থিতির কোনো বৈধ কাগজপত্র নেই।তিনি জেরায় আরও স্বীকার করেছেন যে তারা বিদেশী মুদ্রা দেখিয়ে প্রতারণা করে এবং ছলচাতুরি করে তারা বিদেশী মুদ্রার নোট বিক্রির সময় কারেন্সি নোটের জায়গায় সাধারণ সংবাদপত্র বসিয়ে দিয়ে এভাবে মানুষকে প্রতারিত করতেন।এদিকে ধৃত কল্যাণী বিশ্বাস ওরফে সালমা কোনো বৈধ পরিচয় পত্রের প্রমাণ দিতে পারেনি।তবে উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদের বাসিন্দা মহম্মদ হারুনের কাছ থেকে তার ইউপির ভোটার কার্ড পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন –তৃণমূল কর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় অর্জুন সিং এর

পুলিশের জেরায় ধৃত মহম্মদ হারুন স্বীকার করে নেয় যে গত ছয় মাস ধরে ঘুটিয়ারী শরীফে একটি ভাড়া বাড়িতে তিনি থাকেন এবং তিনি বাংলাদেশী নাগরিক মোমহম্মদ আলি বেপারী এবং কল্যাণী বিশ্বাস ওরফে সালমা কে সঙ্গে নিয়ে মানি এক্সচেঞ্জ নামে লোকদের প্রতারণা করার জন্য এই চক্রান্ত চালাতেন।এই ঘটনায় পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতারণার জন্য ফরেনার্স অ্যাক্ট এবং আইপিসির প্রাসঙ্গিক ধারায় মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করে এবং ধৃতদের ৩ জনকে সোমবার দুপুরে আলিপুর কোর্টে তোলে।

 

পুলিশ জানান গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে মানি এক্সচেঞ্জ ৩ জন প্রতারক কে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে একজন বাংলাদেশী নাগরিক এবং একজন উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদ,আর একজন মহিলা নদীয়ার শান্তিপুরের বাসিন্দা। ধৃত বাংলাদেশি নাগরিকের কোন ভারতে তার উপস্থিতির বৈধ কাগজপত্র নেই।ধৃতদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে এবং ধৃতদের আলিপুর কোর্টে তোলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Hot Topics

মামদো থেকে শাকচুন্নি, ডাইনি থেকে স্কন্ধকাটা এই ভুতেদের আলাদা আলাদা নামের কারণ কী?

মামদো থেকে শাকচুন্নি, ডাইনি থেকে স্কন্ধকাটা এই ভুতেদের আলাদা আলাদা নামের কারণ কী? ভুত! শব্দটা শুনলেই শরীরটা কেমন শিউড়ে ওঠে।  মনে হয়, এই হয়তো...

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় উচ্চমাধ্যমিকের ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা বেশি

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় এবার আটত্রিশ হাজার ৯৫৩ জন ছাত্র-ছাত্রী উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসবে। অন্যান্যবারের মতো এবারেও ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা অনেকটাই বেশি। পশ্চিম মেদিনীপুর...

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের হাতে জলের বোতল,কলম তুলে দিলেন সুমন সাহু

শনিবার রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। প্রায় ২বছর পর অফ লাইনে হোম সেন্টারে পরীক্ষা হচ্ছে পরীক্ষার্থীদের। তবে শিক্ষা মন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী হোম...

Related Articles

৭০০ বছরের পুরানো পুরীর রথ যাত্রার ইতিহাস

৭০০ বছরের পুরানো পুরীর রথ যাত্রার ইতিহাস। ওড়িশার প্রাচীন পুঁথি ব্রহ্মাণ্ডপুরাণ অনুযায়ী সত্যযুগ থেকে চালু হয়েছে এই রথযাত্রা। প্রায় আনুমানিক সাতশো বছরের পুরনো পুরীর...

বিষ্ণুপুরের রথযাত্রা

বিষ্ণুপুরের রথযাত্রা । বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণুপুর মল্ল রাজাদের স্মৃতিবিজড়িত কত যে অনুষ্ঠান ছিল তা হয়তো আজকের বিষ্ণুপুর বাসি পুরোটাই ধরে রাখতে পারেনি। সেই সময়কার...

বহু প্রতীক্ষিত 30 ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট তিনটি সুবিশাল রথ রাজপথে নামার অপেক্ষায়

বেলঘড়িয়া রথ তলা শ্রী শ্রী জগন্নাথ মহাপ্রভু মন্দির কমিটির সহযোগিতায় ও রথতলা পরিষেবা ও ফ্রেন্ডস অফ সোসাইটির উদ্যোগে বহু প্রতীক্ষিত 30 ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট...